Chefs special
Sananda fashion

বর্ষায় লা-জবাব ইলিশ বর্ষায় লা-জবাব ইলিশ মাছের রেসিপির সন্ধান দিলেন ‘দ্য প্রাইড হোটেল’-এর এগজ়িকিউটিভ শেফ রূপম বনিক

g

বরিশালি ইলিশ

উপকরণ: ইলিশ মাছ ২ পিস, সরষের তেল ৫০ মিলি, পেঁয়াজ ১০০ গ্রাম (কুচানো), কাঁচালঙ্কাবাটা ১০ গ্রাম, সরষেবাটা ২৫ গ্রাম, হলুদগুঁড়ো ২ গ্রাম, গোটা জিরে ১ গ্রাম, নারকেল ২৫ গ্রাম (কোরানো), নুন স্বাদমতো, জল পরিমাণমতো।

প্রণালী: কড়াইতে সরষের তেল দিন। তেল গরম হলে তাতে গোটা জিরে ফোড়ন দিন। এরপর পেঁয়াজকুচি দিন। আঠ থেকে দশ মিনিট পেঁয়াজকুচি নাড়তে থাকুন। ভাজা ভাজা হয়ে গেলে কাঁচালঙ্কাবাটা, হলুদগুঁড়ো, নারকেল কোরা এবং নুন দিন। সমস্ত উপকরণ মাঝারি আঁচে রেখে কষিয়ে নিন। এরপর সরষেবাটা এবং অল্প জল দিয়ে দু’ তিন মিনিট নেড়ে নিন যাতে সমস্ত মশলা মিশে যায়। ঝোল ফুটে উঠলে ইলিশ মাছের পিসগুলো দিয়ে দিন। অল্প আঁচে দশ থেকে পনেরো মিনিট ঢাকা দিয়ে রাখুন। মাছ নরম হয়ে গেলে নামিয়ে নিন। গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

- – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – -

নারকেল আনারস ঢাকাই ইলিশ

উপকরণ: ইলিশ মাছ ২ পিস, নারকেল ২৫ গ্রাম (কোরানো), সরষের তেল ৫০ মিলি, সরষেবাটা ২০ গ্রাম, হলুদগুঁড়ো ৫ গ্রাম, আনারস ৫০ মিলি (জ্যুস), আনারস ৫০ গ্রাম (কুচানো), কাঁচালঙ্কাবাটা ৫ গ্রাম, নারকেলের দুধ ২০ মিলি, নুন স্বাদমতো, জল পরিমাণমতো।

প্রণালী: কড়াইতে সরষের তেল দিন। তেল গরম হলে সরষেবাটা দিন। দু’ থেকে তিন মিনিট নেড়ে নিয়ে একে একে কাঁচালঙ্কাবাটা, হলুদগুঁড়ো এবং নুন দিয়ে কষে নিন। এরপর পুরো মশলাটায় জল দিয়ে ফুটতে দিন। ঝোলটা ফুটে গেলে তাতে ইলিশ মাছের পিস দিয়ে সিদ্ধ করে নিন। মাছ কিছুটা নরম হয়ে গেলে তাতে আনারসের কুচি, নারকল কোরা, আনারসের জুস এবং নারকেলের দুধ দিয়ে দিন। ভাল করে মিশিয়ে নিয়ে দু’ তিন মিনিট অল্প আঁচে ঢেকে রাখুন। নামিয়ে নিয়ে স্টিমড রাইসের সঙ্গে সার্ভ করুন।

- – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – -

ইলিশ মাছের পাতুরি

উপকরণ: ইলিশ মাছ ২ পিস, সরষেবাটা ২৫ গ্রাম, টক দই ১০০ গ্রাম, সরষের তেল ৫০ মিলি, কাঁচালঙ্কাবাটা ১০ গ্রাম, কাল জিরে ১ গ্রাম, আদাবাটা ১০ গ্রাম, রসুনবাটা ১৫ গ্রাম, হলুদগুঁড়ো ২ গ্রাম, পাতিলেবু ১টা (রস), কলাপাতা ২ টো, কাঁচালঙ্কা ১টা, নুন স্বাদমতো।

প্রণালী: একটা পাত্রে সরষেবাটা, টক দই, সরষের তেল, কাঁচালঙ্কাবাটা, কাল জিরে, আদাবাটা, রসুনবাটা, হলুদগুঁড়ো এবং পাতিলেবুর রস মিশিয়ে একটা মিশ্রণ তৈরি করুন। ইলিশ মাছের পিসগুলোকে এই মিশ্রণটা দিয়ে মেখে নিয়ে কাঁচালঙ্কা চিরে, কলাপাতায় মুড়িয়ে আধ ঘণ্টা ফ্রিজে রেখে দিন। প্রেশার কুকার বা একটা পাত্রের নিচে জল দিয়ে ২০ মিনিট কলাপাতায় মোড়ানো মাছ ভাপিয়ে নিন। একটা থালায় হরম ভাত দিয়ে তার সঙ্গে পরিবেশন করুন ইলিশ মাছের পাতুরি।

- – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – - – -

আম ইলিশ

উপকরণ: ইলিশ মাছ ২ পিস, সরষের তেল ৫০মিলি, কাল জিরে ২ গ্রাম, রসুন ১০ গ্রাম (কুচানো), টোম্যাটো ২৫০ গ্রাম (কুচানো), হলুদগুঁড়ো ২ গ্রাম, শুকনোলঙ্কাগুঁড়ো ২ গ্রাম, শুকনোলঙ্কা ১টা, কাঁচালঙ্কা ২টো (চেরা), সবুজ আমের শাঁস ২৫ গ্রাম, ধনেপাতা ৫ গ্রাম (কুচানো), আম ১টা (সেদ্ধ করে ৫টা লম্বা পিস করে কাটা), নুন স্বাদমতো, জল পরিমাণমতো।

প্রণালী: একটা কড়াইতে সরষের তেল দিন। তেল গরম হলে কাল জিরে এবং শুকনোলঙ্কা ফোড়ন দিন। এরপর রসুনকুচি দিন। রসুনকুচি সোনালি হয়ে গেলে কুচানো টোম্যাটো দিয়ে কষতে থাকুন। টোম্যাটো নরম হয়ে গেলে নামিয়ে নিয়ে আলাদা রাখুন। ঠান্ডা হয়ে গেলে টোম্যাটো বেটে নিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। কড়াইতে আবার তেল দিন। তেল গরম হলে টোম্যাটোর তৈরি করা পেস্ট এবং সবুজ আমের শাঁস তিন চার মিনিট নেড়ে নিয়ে জল দিন। ফুটে উঠলে ইলিশ মাছের পিস দিয়ে অল্প আঁচে ফুটিয়ে নিন। মাছ নরম হয়ে গেলে উপর থেকে চেরা কাঁচালঙ্কা এবং সেদ্ধ করা আমের পিস দিয়ে নামিয়ে নিন। ধনেপাতা কুচি দিয়ে গার্নিশ করে গরম ভাতের সঙ্গে সার্ভ করুন।

facebook
facebook